বৈজ্ঞানিকের দপ্তর-লক্ষ করি পক্ষীকে-টিয়া-মনস্বিনী ঘোষাল-বর্ষা ২০১৬

আগের এপিসোডগুলো

bigganpokkhi01পোষ্য হিসেবে কোন বাড়ির খাঁচায় এই পাখিটিকে বোধহয় আমরা সবাই দেখেছি। উজ্জ্বল সবুজ আর টুক্‌টুকে লাল বাকানো ঠোঁটের এই টিয়াপাখিদের দারুণ সুন্দর দেখতে হয়। লম্বা লেজওয়ালা এই পাখিদের গলায় একটা লাল ও কালো রঙের একটা ‘রিং’ থাকে, যার থেকে এদের ইংরেজি নাম “Rose Ringed Parakeet”। তবে খাঁচার চেয়ে ঢের বেশি সুন্দর লাগে যখন এরা গাছের ডালে ঝাঁক বেঁধে বসে ঝগড়া করে। কাঁচালঙ্কা, চিনেবাদাম, ছোলা, ইত্যাদি এদের প্রিয় খাদ্য। এরা গাছের ফোকরে বাসা বানায় ও চার-ছটি ডিম পাড়ে। পশ্চিমবঙ্গের সর্বত্রই এদের দেখতে পাওয়া যায়।

bigganpokkhi02আমাদের মতো শখের পক্ষিপ্রেমীদের কাছে, খুব সহজে পাখি দেখার প্রিয় জায়গা হল কলকাতার রবীন্দ্রসরোবর। সেখানকার প্রায় সমস্ত গাছেই ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে এরা। বিশেষত প্রাণহীন ন্যাড়া গাছগুলোয় এদের চঞ্চল সবুজ ডানার খেলা এক অপূর্ব দৃশ্য। বিকেলের দিকে এই শহর কলকাতাতেও, ‘কিয়াক-কিয়াক’ আওয়াজ করে আর আকাশে উজ্জ্বল সবুজ রঙ ছিটিয়ে, এরা যখন ঝাঁক বেঁধে বাসায় ফেরে, সে দৃশ্য দু দণ্ড দেখলে মন ভালো হয়ে যায়।